কবরস্থানের জায়গা দখল করে রাস্তায় কাঠ ও বেঞ্চি ফেলে রাস্তা অবরোধ করে রাখার অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠে হরিশ্চন্দ্রপুর-১ নং ব্লকের মহেন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাগমারা গ্রামের বাসিন্দারা।

0
176

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদাঃ-কবরস্থানের জায়গা দখল করে রাস্তায় কাঠ ও বেঞ্চি ফেলে রাস্তা অবরোধ করে রাখার অভিযোগে উত্তপ্ত হয়ে উঠে হরিশ্চন্দ্রপুর-১ নং ব্লকের মহেন্দ্রপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের বাগমারা গ্রামের বাসিন্দারা।ঘটনাটি ঘটেছে আজ বাগমারা গ্রামে।হরিশ্চন্দ্রপুর থানার পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করেন।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ মতিউর রহমান,মুক্তি সেখ,মজিবুর রহমান ও‌ রাকিবুল হক সহ ছয়টি পরিবারের লোকেরা আজ সকাল ১০ টা নাগাদ গ্রামবাসীদের একমাত্র যাতাযাতের রাস্তায় কাঠ ও বেঞ্চি ফেলে পথ আটকে দেয়।এতে গ্রামবাসীরা ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে।অবরোধ তুলতে গেলে গ্রামবাসীদের সঙ্গে তাদের বচসা শুরু হয়।

তাদের আরো অভিযোগ তারা দীর্ঘ বছর ধরে কবরস্থানের জায়গা দখল করে রেখেছে।কবরস্থানের কমিটির পক্ষ থেকে জায়গা ফাঁকা করে দেওয়ার কথা বারবার বলা হলেও তাঁরা কোনো কর্ণপাত করেননি।কবরস্থানের জায়গা মাপজোক করে চতুর্দিকে প্রাচীর দেওয়ার কাজ শুরু হলে তারা বাধা সৃষ্টি করে।এতেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গ্রামবাসী।

অপরদিকে অভিযুক্তরা জানান তারা দীর্ঘ বছর ধরে নিজস্ব পৈত্রিক সম্পত্তিতে বসবাস করে আসছে।তাদের বাড়ির সামনে কবরস্থানের জায়গার উপর দিয়ে চলে গেছে পাঁকা রাস্তা।বাড়ির সামনে পরে রয়েছে ফুটপাত।সেই জায়গাটুকু কবরস্থানের হলেও তারা ব্যবহার করে আসছে।গ্রামবাসীরা সেই জায়গাটুকু প্রাচীর দিয়ে ঘিরে দিতে চাইলে তারা লিখিতভাবে বাড়ির সামনে রাস্তা ছেড়ে দেওয়ার জন্য আবেদন করেন। কিন্তু গ্রামবাসীরা তাদের কাতর আবেদন না শুনে তাদের উপরে চড়াও হয়েছেন বলে অভিযোগ।কেউ চায়ের দোকান, কেউবা মুদিখানার দোকান করে খায়।প্রাচীর দিয়ে ঘিরে দিয়ে বাড়ি থেকে বার হওয়া মুসকিল হয়ে পড়বে।

হরিশ্চন্দ্রপুর থানার আইসি সঞ্জয় কুমার দাস জানান দুই পক্ষকে থানায় ডাকা হয়েছে।তাদের লিখিত অভিযোগে ভিত্তিতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাইট:আমেরুল ইসলাম (পঞ্চায়েত সদস্য)
সেখ আরিফুল (কবরস্থান কমিটির সভাপতি)

মুক্তি সেখ(অভিযুক্ত-রাস্তা অবরোধকারী)
রাকিবুল হক(অভিযুক্ত- রাস্তা অবরোধকারী)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here