চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে একাধিক মানুষের কাছ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে নদিয়ার রাণাঘাটের এক ব্যক্তির নামে।

0
275

নদীয় , নিজস্ব সংবাদদাতা:- কৃষি বিকাশ শিল্প কেন্দ্র নামে কেন্দ্র সরকারের অধীনস্থ দফতরে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে একাধিক মানুষের কাছ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে নদিয়ার রাণাঘাটের এক ব্যক্তির নামে। একই সঙ্গে নাম জড়িয়েছে রাণাঘাটের তৃণমূলের যুব এক নেতার বিরুদ্ধেও। চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নাম করে ৫০ লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগ এনে রাণাঘাট মহকুমা আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন মালদা ইংলিশ বাজারের শামসুদ্দিন রহমান নামে এক ব্যবসায়ী।
ওই ব্যবসায়ীর অভিযোগ, ২০১৫ সালের শেষের দিকে কৃষি বিকাশ শিল্প কেন্দ্র নামে কেন্দ্র সরকারের একটি দপ্তরে ৪,২০০ জন নিয়োগ হবে বলে বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। সেই বিজ্ঞাপন দেখে নদিয়ার রাণাঘাট সাত নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা শুভাশিস নাগের সঙ্গে যোগাযোগ হয়। যিনি নিজেকে কৃষি বিকাশ শিল্প কেন্দ্রের চেয়ারপারসন বলেন দাবি করেন। আলাপ হওয়ার পর থেকে ওই দপ্তরে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন শুভাশিস নাগ সহ রাণাঘাটের যুব তৃণমূল নেতা আস্তিক দাস। মালদার একাধিক যুবক প্রতারণার ফাঁদে পা দিয়ে ৫০ লক্ষ টাকা দফায় দফায় বিভিন্ন ব্যাংকের মাধ্যমে ও নগদ টাকা তুলে দেন। সময় উত্তীর্ণ হওয়ার পর ওই দুই ব্যক্তির কাছে টাকা ফেরত চাইতে গেলে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। তাই বাধ্য হয়ে ৩ জানুয়ারি রাণাঘাট মহকুমা আদালতে শুভাশিস নাগ ও আস্তিক দাসের বিরুদ্ধে মামলা করেন শামসুদ্দিন রহমান।
রাণাঘাট মহকুমা আদালতে অভিযোগের পর থেকে বেপাত্তা শুভাশিস নাগ। অন্যদিকে আস্তিক দাস নামে ওই তৃণমূল যুব নেতা নিজেকে রাণাঘাট সাংগঠনিক জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের যুবশক্তির কো-অর্ডিনেটর বলে দাবী করেন। সেই পদের প্রসঙ্গ নিয়ে প্রতিবাদ জানান রাণাঘাট শহর যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি রঞ্জিত পাল।
পাল্টা বিজেপি নদিয়া দক্ষিণ সাংগঠনিক জেলার সভাপতি তথা রাণাঘাট উত্তর-পশ্চিমের বিধায়ক পার্থসারথি চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, তৃণমূল কংগ্রেসের এই জিনিসটাই চলছে। তোলাবাজি করা, চাকরি দেওয়ার নাম করে বিভিন্ন মানুষের কাছ থেকে টাকা নেওয়া নিচু স্তর থেকে যুবরাজ পর্যন্ত চলছে। সুতরাং এদের সম্পর্কে বেশি কিছু না বলাটাই ভালো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here