রাজনৈতিক হিংসায় উত্তপ্ত খেজুরি,পরিদর্শনে বিরোধী দলনেতা,নিশানা শাসক দলকে।

0
319

নিজস্ব সংবাদদাতা, পূর্ব মেদিনীপুর:- ফের উত্তপ্ত পূর্ব মেদিনীপুরের খেজুরি। এবার এলাকা দখলের লড়াইয়ে রক্তাক্ত কাণ্ড। জানা গিয়েছে ১লা জানুয়ারি বছরের প্রথম দিন তৃণমূলের প্রতিষ্ঠা দিবস পালনের পর বিজেপি কর্মীর বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ শাসক শিবিরের বিরুদ্ধে। বিজেপির আশ্রিত দুষ্কৃতীদের আক্রমণে তৃণমূলের ৪ কর্মী আহত বলে অভিযোগ তৃণমূলের। অন্যদিকে খেজুরির ২ নম্বর ব্লকের ভাঙ্গনমারিতে বোমা ফেটে মৃত্যু হয়েছে ২ তৃণমূল কর্মীর।। গত ১ জানুয়ারি তৃণমূল কংগ্রেসে পার্টির প্রতিষ্ঠা দিবসে খেজুরি ২ নম্বর ব্লকের গোড়াহাট, কটকাদেবী চক গ্ৰামে রাতের অন্ধকারে বিজেপি কর্মীদের উপর তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ বিজেপির। বিভিন্ন এলাকা থেকে তৃণমূলের হার্মাদ বাহিনী কটকাদেবীচক গ্ৰামের বিজেপি কর্মী বুলা গিরিকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। তার পর রাতে লোহার রড, লাঠি দিয়ে তাঁর পা ভেঙে ঝোপের মধ্যে ফেলে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এর পর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি।
তারপর ফের ২ জানুয়ারি তৃণমূলের পঞ্চায়েত শিলাদিত্য বর, অমলেন্দু বর,সঞ্জয় বরদের নেতৃত্বে বেছে বেছে বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা হয় বলে অভিযোগ বিজেপির। দেবকুমার মাইতি, অসীম বর,পল্টু বর, রবীন বর, অলকেশ বর- সহ প্রায় ৮ থেকে ১০ জন বিজেপি কর্মীর বাড়ি ভাঙচুর ও লুটপাঠ চালানোর অভিযোগ ওঠে। এমনকী মহিলাদের সম্মানহানি করার চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগ। পুলিশ দর্শকের ভূমিকা পালন করছে বলে অভিযোগ বিজেপির।
উত্তপ্ত হওয়ার পর এমন ঘটনার খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার খেজুরিতে যান রাজ্যের বিরোধী দলনেতা তথা নন্দীগ্রামের বিধায়ক শুভেন্দু অধিকারী,ও স্থানীয় বিধায়ক শান্তনু প্রামাণিক । এইদিন গোটা এলাকা পরিদর্শনের পাশাপাশি আক্রান্ত পরিবারের সাথে দেখা করেন বিরোধী দলনেতা, পাশাপাশি সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে একাধিক প্রসঙ্গে শাসক দল কে নিশানা করেন তিনি, তিনি বলেন আবার পুরনো পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাইছে তৃণমূল, এখানে বিজেপি জিতেছে, আবার ভোট হলে পুনরায় জিতবে, তিনি আরো বলেন পুনরায় এলাকা দখল করার জন্য পুলিশকে কাজে লাগিয়ে এইরকম ঘটনা ঘটাচ্ছে। এমনটাই বললেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী।