বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের জেরে, একই দড়িতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী প্রেমিকযুগল।

0
260

নদীয়া, নিজস্ব সংবাদদাতা:- করিমপুর থানার অন্তর্গত কলাবেরিয়া গ্রামে একই দড়িতে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী প্রেমিক যুগল। পরিবার সূত্রে জানা যায় কলাবেরিয়া দাসপাড়া তে বাড়ি সবিতা দাসের বিবাহ হয় পেশায় অটোচালক স্বপন দাসের সাথে। পাড়ারই অমিয় ধরের সাথে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক অনেকদিন ধরেই। সবিতা দেবীর স্বামী স্বপন দাস এ বিষয়ে জানান তার স্ত্রীর ফোনে বিবাহ বহির্ভূত প্রেমালাপের কথা জানতে পেরে তার স্ত্রীকে সংসার না ভাঙার অনুরোধ করেছিলেন বহুবার। তার স্ত্রী রাত্রি এগারোটার দিকে বাথরুম করতে যাবে বলে বাইরে বের হয়, বেশ কিছুটা সময় পার হয়ে যাওয়ার পর খোঁজাখুঁজি করেও তাকে পাওয়া যায় না। প্রেমিক অমিয় ধরের বাড়িতে জানতে চাইলে তার উপস্থিতি সম্পর্কে কিছুই জানাতে পারেন না পরিবারের পক্ষ থেকে। অবশেষে এলাকাবাসী কিছুটা দূরে অমিয় ধরের নির্মীয়মান নতুন বাড়িতে একই দড়িতে অমিয় ধর ও সবিতা দাসের ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পান। তাদের চেচামেচিতে আত্মীয়-স্বজন ও পুলিশ গিয়ে দেহ দুটিকে উদ্ধার করে করিমপুর গ্রামীণ হাসপাতাল নিয়ে যায় এবং সেখান থেকে কর্তৃপক্ষ মৃতদেহ বলে ঘোষণা করলে করিমপুর থানার পুলিশ ময়না তদন্তের জন্য জোড়া মৃতদেহ কৃষ্ণনগর সদর হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। ওই তিন পরিবারসহ গোটা গ্রামে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।