বুধবার সকালেই জেসিবি গাড়িকে কাজে লাগিয়ে ময়লা আবর্জনা সাফ করার কাজ শুরু হয় বিধায়কের উদ্যোগেই।

0
364

সুভাষ চন্দ্র দাশ,ক্যানিং –সুন্দরবনের প্রবেশদ্বার এবং ঐতিহ্যবাহী বিট্রীশ আমলের শহর ক্যানিং।ময়লা আবর্জায় মুখ ঢেকেছে। বিশেষ করে ক্যানিং স্পোর্টস কমপ্লেক্স ময়দান সংলগ্ন এলাকায় আবর্জনার স্তুপ এতোটাই যে, যেন একটি ভাগাড়ে পরিনত হয়েছে। এই রাস্তা দিয়ে নাকে রুমাল চেপে সাধারণ মানুষ থেকে বিভিন্ন সরকারী অফিসের কর্মচারীদের কে যাতায়াত করতে হয়।ময়লা আবর্জনায় অতিষ্ট হয়ে উঠেছিলেন স্থানীয় মানুষজন থেকে প্রতিনিয়ত যাতায়াতকারী লক্ষ লক্ষ নিত্যযাত্রীরাও। এমন ঘটনার কথা নজরে পড়ে ক্যানিং পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক পরেশরাম দাস এর।পরিস্থিতির ভয়াবহতা বুঝতে খুব বেশী সময় নিতে হয়নি তাঁর।মুহূর্তে সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ গ্রহণ করেন বিধায়ক।বুধবার সকালেই জেসিবি গাড়িকে কাজে লাগিয়ে ময়লা আবর্জনা সাফ করার কাজ শুরু হয় বিধায়কের উদ্যোগেই।
আচমকা ক্যানিং শহরে ময়লা আবর্জনা পরিষ্কার হতে দেখে স্বভাবতই খুশি সাধারণ মানুষজন।
ঘটনা প্রসঙ্গে বিধায়ক পরেশরাম দাস জানিয়েছে ‘ঐতিহ্যবাহী শহর ক্যানিং।শহরের আনাচে কানাচে যাতে করে ময়লা আবর্জনার স্তুপ তৈরী না হয় কিংবা সাধারণ মানুষ যাতে করে কোন প্রকার অসুবিধায় না পড়তে হয় তারজন্য এমন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।’