শতাব্দী প্রাচীন গোপীবল্লভপুরের বুলবুলি পাখির লড়াই এবছর বন্ধ প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে।

0
248

তৃণ্ময় বেরা, ঝাড়গ্রাম: মকর সংক্রান্তির দিনে গোপীবল্লভপুরের ঠাকুরবাড়ী প্রাঙ্গনে আজও অটুট বুলবুলি পাখির লড়াই।কিন্তু এবছর প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে বন্ধ থাকলে সে ঐতিহ্যবাহী লড়াই। মকর সংক্রান্তির দিন সকালবেলায় সুর্বণরেখা নদীতে পূর্ণ স্নান সেরে পিঠে পুলি খেয়ে এলাকার মানুষ ভীড় জমান ঠাকুরবাড়ী প্রাঙ্গনে।উদ্দেশ্যে একটাই,বুলবুলি পাখির লড়াই চোখে দেখা।ঠাকুরবাড়ী এলাকার মানুষের কাছে সবচেয়ে বড়ো উৎসব বলেই পরিচিত।এই খেলা মূলত দুটি পাড়াকে কেন্দ্র করেই হয়।একটি দক্ষিন পাড়া ও বাজার পাড়া।এই খেলার জন্য একমাস আগে থেকেই বিভিন্ন জায়গা থেকে বুলবুলি পাখি ধরে আনেন প্রতিযোগীরা।তার পরে নিত্যদিন বুলবলি পাখিদের কলা,আপেল দুধ খাইয়ে পোষ মানান প্রতিযোগী রা।মকর সংক্রান্তির সকাল থেকে বুলবুলি পাখিদের না খাইয়ে উপোস করে রাখেন।মকর সংক্রান্তির দিন ঠাকুরবাড়ীর রাধাগোবিন্দ জীউর মন্দির প্রাঙ্গনে মঞ্চ তৈরী করে একটি ঝাঁ চকচকে বিছানার ওপর শুরু হয় বুলবুলি লড়াই।এই খেলায় কোনোরকম অস্ত্র ব্যবহার করা হয়না। উপোস থাকা পাখিদের সামনে পাকা কলা দেখিয়ে লড়াই লাগানো হয় দুই পাখির মধ্যে।দুটি পাড়ার পাখিদের মধ্যে যে পাখি বেশি কামড় বসাই সেই পাখির পয়েন্ট বসিয়ে জয় পরাজয়ের ফল ঘোষনা করা হয়।এই লড়াইয়ে প্রতিযোগীরা হাউসী বলে পরিচিত। মন্দির কমিটির সম্পাদক কল্যান বারিক বলেন, ‘গত তিনদিন ধরে বৃষ্টি হচ্ছে। সেই প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে বন্ধ থাকছে লড়াই। আবহাওয়া ঠান্ডা থাকার জন্য পাখি লড়াই লাগবে না। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে এই লড়াই হবে।’

ফাইল চিত্র।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here