ঝাড়গ্রামে জঙ্গল মহল উৎসবের উদ্বোধন করলেন রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

0
418

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝাড়গ্রামঃ- পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন বিষয়ক দপ্তর ও পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়ন পর্ষদের উদ্যোগে, সোমবার থেকে শুরু হলো “৮ম জঙ্গলমহল উৎসব”। জঙ্গলমহলের জেলা হিসেবে ঝাড়গ্রামে রাজ্য সরকারের বিভিন্ন বিভাগের মন্ত্রীদের উপস্থিতিতে সোমবার বিকেলে জঙ্গলমহল উৎসবের সূচনা হয়। উৎসব চলবে ১৯শে জানুয়ারী বুধবার পর্যন্ত। ঝাড়গ্ৰামে জঙ্গল মহল উৎসব এর সূচনা করেন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। প্রধানতঃ জঙ্গলমহল এলাকার আদিবাসী ও স্থানীয় সংস্কৃতি এবং পর্যটনের মেলবন্ধনের উদ্দেশ্যেই এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছে। সেইসঙ্গেই জঙ্গলমহলের আদিবাসী সংস্কৃতির উন্নয়ন জঙ্গলমহলের জীবন-জীবিকা ও প্রকৃতি পর্যটনের বিষয়ে আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে মেলা প্রাঙ্গনে। একই সঙ্গে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের স্টল ও জঙ্গলমহলের সুসজ্জিত কারিগরি হাট থাকছে উৎসব প্রাঙ্গণে। ঝাড়গ্রাম শহরের ননীবালা বয়েজ স্কুল মাঠে করোনা বিধিনিষেধ মেনে মেলার আয়োজন করা হয়েছে।মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়, রাজ্যের প্রতি মন্ত্রী বিরবাহা হাঁসদা,বিধায়ক দুলাল মুর্মু,ঝাড়গ্রাম জেলা পরিষদের সভাধিপতি মাধবী বিশ্বাস,ঝাড়গ্রামের জেলাশাসক জয়সী দাশগুপ্ত সহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন। ঝাড়গ্রাম জেলার অষ্টম বর্ষ জঙ্গলমহল উৎসবের উদ্বোধন করে রাজ্যের মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন জঙ্গলমহলের সংস্কৃতিকে বাঁচিয়ে রাখার জন্য এবং জঙ্গলমহলের উন্নয়নের জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জঙ্গলমহল উৎসব অনুষ্ঠান শুরু করেছিলেন । সেই অনুষ্ঠান ৮ ম বর্ষে পদার্পণ করেছে। করোনা পরিস্থিতির জন্য বড় ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়নি। করোনা বিধি নিষেধ মেনে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে ।এই অনুষ্ঠানে ঝাড়গ্রাম জেলার শিল্পীরা অংশগ্রহণ করবেন । করোনা বিধি মেনে মেলা প্রাঙ্গণে সকলকে আসার জন্য তিনি আহ্বান জানান। সেই সঙ্গে তিনি বলেন এই মেলার মূল লক্ষ্য হলো আদিবাসীদের আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া এবং আদিবাসীদের উন্নয়নে কাজ করা। তাই আদিবাসী মানুষদের সাথে রাজ্য সরকার রয়েছে এবং আগামী দিনেও থাকবেন। মুখ্যমন্ত্রী জঙ্গল মহলের মানুষকে ভালবাসেন ।তাই তিনি এই জঙ্গলমহল উৎসবের সূচনা করেছিলেন।