কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার সাফাই কর্মীদের দাবি মেনে নিলেন পৌরসভার প্রশাসক শচীন সিংহ রায়।

0
236

জলপাইগুড়ি, নিজস্ব সংবাদদাতাঃ- কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার সাফাই কর্মীদের দাবি মেনে নিলেন পৌরসভার প্রশাসক শচীন সিংহ রায়। ফলে আগামীকাল থেকে আবারও স্বাভাবিক কাজকর্ম শুরু করবে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার সাফাই কর্মীরা বিভিন্ন ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে। জানা যায় সাফাই কর্মীরা এখন বেতন পায় দিন প্রতি 264 টাকা। কিন্তু সরকারি নির্দেশে তাদের পাওয়ার কথা 305 টাকা করে। বহুবার সাফাই কর্মীরা তাদের দাবি পৌর প্রশাসকের কাছে রাখলেও তিনি এ ব্যাপারে কোন কর্ণপাতই করছিলেন না এতদিন। অবশেষে গতকাল সিদ্ধান্ত নেয় সাফাই কর্মীরা যতক্ষণ অব্দি তাদের বেতন বৃদ্ধি না হবে কতক্ষণ অব্দি তারা কালিয়াগঞ্জে কোন ওয়ার্ডে গিয়ে কোন কাজ করবেন না। সকাল থেকে দেখা যায় সাফাই কর্মীরা কেউ কোন কাজে যোগ দেননি। ফলে অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়। এরপর বাধ্য হয়ে দুপুরের পর সাফাই কর্মীদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে পৌর প্রশাসক শচীন সিংহ রায় বৈঠক করেন। এই বৈঠক থেকেই সাফাই কর্মীদের বেতন 264 টাকা থেকে বেড়ে 280 টাকা করে করার কথা ঘোষণা করলে কর্মীদের প্রতিনিধিরা সে দাবি মেনে নেন। তবে অনেক সাফাই কর্মী আবার এ নিয়ে সমালোচনাও করেন যে তাদের বেতন 305 টাকা হওয়ার কথা কিন্তু কেন 305 টাকা না করে 280 টাকা করে করা হলো। এ নিয়েও বেশ কয়েক জন সাফাই কর্মীদের ক্ষোভ প্রকাশ করতে দেখা যায়।তবে যাই হোক না কেন গত দু’দিন ধরে চলা সাফাই কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির দাবিতে যে অচল অবস্থার একটা সৃষ্টি হয়েছিল কালিয়াগঞ্জ পৌরসভা তে তার অবসান আজ ঘটল এটা বলা যেতেই পারে। আজ সকাল থেকে পৌরসভার একশ কুড়িজন সাফাই কর্মী কাজে যোগ দেননি। সবাইকে দেখা গিয়েছিল পৌরসভার সামনে হাজির হয়ে তাদের নিজেদের মধ্যে ক্ষোভ প্রকাশ করে কথা বলতে। এদিকে আজকের সাফাই কর্মীদের এই অচলাবস্থার ফলে কালিয়াগঞ্জ পৌরসভার সামনে নিরাপত্তা ব্যবস্থা আটক করা হয়েছিল।