যমরাজের কড়া পাহারায় করোনা কে বিদ্ধ করে ক্যানিংয়ে সুন্দরবন মিলন মেলা।

0
1538

সুভাষ চন্দ্র দাশ,ক্যানিং – সুন্দবনের অন্যতম প্রাণ কেন্দ্র ক্যানিং শহর।শীত পড়লেই ক্যানিং শহর ও শহরতলি এলাকায় বিভিন্ন মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।বিগত ২০২০ সাল থেকে করোনার দাপটে সেই সমস্ত মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান বন্ধ হয়ে যায়।করোনার বাড় বাড়ন্ত চলছে। বর্তমানে সমস্ত রকম কোভিড বিধি মেনেই সাধারণ মানুষের মনে আনন্দ দেওয়ার জন্য শুরু হল সুন্দরবন মিলন মেলা। গত ২৫ জানুয়ারী মিলনমেলার আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন মাতলা ২ পঞ্চায়েত প্রধান উত্তম দাস।
বিশিষ্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলাপরিষদ সদস্য তপন সাহা,সুশীল সরদার,ক্যানিং ১ ব্লক যুবতৃণমূল সভাপতি অরিত্র বোধ সহ অন্যান্যরা। পুরাতনচাঁদনী মিলন সংঘ আয়োজিত মিলন মেলা কমিটির সভাপতি বিকাশ মজুমদার জানিয়েছেন ‘করোনা কালে মেলা অনুষ্ঠিত নিয়ে একাধিক সন্দিহান ছিল। সেই সমস্ত বাধা বিপত্তি কাটিয়ে সমস্তরকম কোভিড বিধি মেনেই অনুষ্ঠিত হচ্ছে প্রথম বর্ষের ক্যানিংয়ের সুন্দরবন মিলন মেলা।বিশেষ করে মেলার মধ্যে মাস্ক বিহীন মানুষের প্রবেশ একেবারেই নিষেধ। এছাড়াও মেলার মাঠেই রয়েছেন স্বয়ং যমরাজ। তিনি সকল কে সচেতন করছেন। পাশাপাশি কোথাও কোন প্রকার ভীড় দেখলেই মুহূর্তে করোনার গদা তুলে তা সচেতন করছেন।এছাড়াও সাধারণ মানুষজন অতি সতর্কতা অবলম্বন করেই কোভিড বিধি মেনেই মেলায় আসছেন।’
মেলা সুন্দরবন মিলন মেলা কমিটির সম্পাদক নীলকন্ঠ দাস জানিয়েছেন ‘ক্যানিং নতুন বাস টার্মিনাসে আয়োজিত মিলন মেলা চলবে আগামী ৩ ফেব্রুয়ারী পর্যন্ত। মেলায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি থাকছে বাউলগান,শিক্ষামূলক অনুষ্ঠান।করোনা বিধি মেনে চলার জন্য যমরাজের দাপট মেলার মূল আকর্ষণ।কারণ মেলার মধ্যে যমরাজের বিচরণ সর্বত্র।’