কৈলাসপতির তিরোধান দিবস উৎযাপন দক্ষিণগ্রামে ৷

0
511

বীরভূম, নিজস্ব সংবাদদাতা:- আজ বীরভূম জেলার ময়ুরেশ্বর এক নং ব্লকের দক্ষিণগ্রামে শ্রীশ্রী কৈলাশপতি মহারাজের তিরোধান দিবস উৎযাপন হচ্ছে ৷
কথিত আছে তৃতীয় পান্ডব অর্জুন কলিযুগে কৈলাসপতি রূপে আবির্ভূত হয়েছিলেন। সখা শ্রীকৃষ্ণের খোঁজ করতে করতে তিনি শ্রীধাম দক্ষিনগ্রামে উপস্থিত হন। তাঁর হুঙ্কারে ভগবান শ্রীকৃষ্ণ গোসাঞীচাঁদ মহাপ্রভু রূপে শ্রীধাম দক্ষিনগ্রামের জমিদার বাড়িতে জন্ম গ্রহণ করেন(সন ১২৮২) । গোসাঞীচাঁদ মহাপ্রভুই হলেন শ্রী চৈতন্যদেব। দক্ষিণ গ্রামের জমিদার পরিবারের গোলা বাড়িতে কৈলাসপতি থাকতেন। জমিদার বাড়ির সকলেই ওনার নিকট মন্ত্র গ্রহণ করেন। গোসাঞীচাঁদ হলেন কৈলাসপতির অন্যতম শিষ্য। কৈলাসপতি বামাখেপার পথ প্রদর্শক ছিলেন। কৈলাসপতির আদেশে ওনার শিষ্য মোক্ষানন্দ বামদেবকে তন্ত্র মন্ত্র দেন। কৈলাসপতি ৩০০ বছরের অধিক জীবিত ছিলেন।
১৬মাঘ, সন ১৩২৪ শ্রীধাম দক্ষিণগ্রামে মহাযোগী কৈলাসপতি ঠাকুর শ্রী শ্রী গোসাঞীচাঁদের কোলে মাথা রেখে স্থুলদেহ ত্যাগ করেন। ওনার মহাপ্রয়াণ দিবস উপলক্ষে প্রতি বৎসর কৈলাসপতি আশ্রমে, দক্ষিণগ্রাম, বীরভূমে ১৬ মাঘ মহোৎসব অনুষ্ঠিত হয়। অহরহ চলে নাম সংকীর্তন। আশ্রমের বাতাস মুখরিত হয় ৷ এই উপলক্ষ্যে মহোৎসব ও মেলার আয়োজন হয় ৷
এবছর কোভিড বিধি মেনে সংক্ষিপ্তভাবে মেলা ও মহোৎসবের আয়োজন করা হয় ৷

ছবি ও তথ্য – সুকান্ত রায় , ময়ূরেশ্বর, বীরভূম ।