হাই মাদ্রাসার হেডমাস্টারের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তুলে স্কুলের গেটের সামনে বই-খাতা-কলম ফেলে বিক্ষোভ দেখালেন ছাত্র-ছাত্রীরা।

0
249

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদাঃ- হাই মাদ্রাসার হেডমাস্টারের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ তুলে স্কুলের গেটের সামনে বই-খাতা-কলম ফেলে বিক্ষোভ দেখালেন ছাত্র-ছাত্রীরা।ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার হরিশ্চন্দ্রপুর ২ নং ব্লকের তালবাংরুয়া হাই মাদ্রাসায়।ঘটনার জেরে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে হরিশ্চন্দ্রপুর থানা এলাকা জুড়ে।

ছাত্র-ছাত্রী এবং অভিভাবকদের অভিযোগ
পাড়ায় শিক্ষালয় প্রথম দিনে ক্লাস হয়নি, হয়নি মিড-ডে-মিল।হাই মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক খায়রুল আলম দীর্ঘদিন ধরে স্কুলে অনুপস্থিত রয়েছেন। অথচ তার বেতন চালু রয়েছে।কন্যাশ্রী,সবুজ সাথী থেকে শুরু করে স্কুলের একাধিক প্রকল্প ছাত্র-ছাত্রীদের পাইয়ে দেওয়ার জন্য তিনি অনৈতিকভাবে টাকা দাবি করেন।স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের ভর্তির টাকাও তিনি অনৈতিকভাবে নিজের কাছে রেখে দিয়েছেন।এমনকি ছাত্র-ছাত্রীদের ট্যাবের টাকাও তিনি বেআইনি ভাবে লেনদেন করেছেন।

এখনো পর্যন্ত অনেক ছাত্রছাত্রী বিদ্যালয়ের ট্যাবের টাকা পর্যন্ত পাইনি।পাশাপাশি এও অভিযোগ স্কুলের প্রধান শিক্ষক বিবাহিত ছাত্রীদের নামে কন্যাশ্রী এবং স্কুল বহির্ভূত ছাত্র-ছাত্রীদের নামে ট্যাবের টাকাও ঢুকিয়েছেন।বিনিময়ে কমিশন নিয়েছেন বলে অভিযোগ।এই নিয়ে ইতিমধ্যেই এলাকার অভিভাবকরা হেড মাস্টারের বিরুদ্ধে হাইকোর্ট পর্যন্ত মামলা দায়ের করেছেন।হাইকোর্ট হেড মাস্টারের বিরুদ্ধে তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা দপ্তরকে।

যদিও সমস্ত অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন ওই স্কুলের প্রধান শিক্ষক খায়রুল আলম। অন্যদিকে শিক্ষা দপ্তর জানিয়েছে ইতিমধ্যে এ ব্যাপারে হাইকোর্ট হয়েছে। তবু আমরা সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখছি। যদিও এ ব্যাপারে হরিশ্চন্দ্রপুর ২ বিডিও বিজয় গিরি জানান গোটা বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here