তৃণমূলের প্রার্থীদের মনোনয়নে এসে ১৬ আসনে বিরোধীদের শূন্যের চ্যালেঞ্জ দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহের।

0
257

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ দলীয় প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা দেওয়াতে এসে ১৬ শূন্য করার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলেন দিনহাটার তৃণমূল কংগ্রেস বিধায়ক উদয়ন গুহ। আজ দিনহাটা শহরের ফুলদিঘি লাগোয়া সুভাস ভবন থেকে বিশাল মিছিলে প্রার্থী সাথে নিয়ে মহকুমা শাসকের দফতরের সামনে এসে পৌঁছান উদয়ন বাবু। এরপর প্রার্থী দফতরের ভিতরে ঢুকিয়ে দিয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় উদয়ন বাবু বলেন, “লড়াই একটাই ১৬ শূন্যের লড়াই। আজকের মিছিল দেখে কি মনে হচ্ছে না ১৬ শূন্য হবে?”
দিনহাটা পুরসভায় ১৬ টি আসন রয়েছে। প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পর ১২ নম্বর ওয়ার্ডের প্রার্থী নিয়ে উদয়ন গুহকে ঘেরাও করে বিক্ষোভও দেখিয়েছিলেন সেখান তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের একাংশ। অনেকে প্রার্থী বদল হওয়ার প্রত্যাশা করেও ছিলেন। কিন্তু গতকাল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থী তালিকা নিয়ে তাঁর অবস্থান স্পষ্ট করে দেওয়ার পর বিরোধিতায় পিছু হটেন অনেক তৃণমূল কর্মী সমর্থক। আর তাই এদিন মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় ক্ষোভ বিক্ষোভের কোন আভাস আর পাওয়া যায় নি বলেই রাজনৈতিক মহলের ধারনা।
এবার দিনহাটা পুরসভার ১৬ টি আসনের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীরা হলেন ১ নম্বর ওয়ার্ডে সুলতা দে ঘোষ, ২ নম্বর ওয়ার্ডে চঞ্চল সাহা, ৩ নম্বর ওয়ার্ডে জয়শ্রী সারকার, ৪ নম্বর ওয়ার্ডে সাবীর সাহা চৌধুরী, ৫ নম্বর ওয়ার্ডে বিশ্বজিৎ ভৌমিক, ৬ নম্বর ওয়ার্ডে নমিতা বর্মন, ৭ নম্বর ওয়ার্ডে মিঠু দাস, ৮ নম্বর ওয়ার্ডে বাবলু সাহা, ৯ নম্বর ওয়ার্ডে পার্থ নাথ সরকার, ১০ নম্বর ওয়ার্ডে অপর্ণা দে নন্দী, ১১ নম্বর ওয়ার্ডে গৌরি শঙ্কর মাহেশ্বরি, ১২ নম্বর ওয়ার্ডে শম্ভু আধিকারি, ১৩ নম্বর ওয়ার্ডে শিখা নন্দী, ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে রমেন বর্মন, ১৫ নম্বর ওয়ার্ডে সমীর সরকার এবং ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে জাকারিয়া হোসেন।