“বৈঠকি আড্ডায় মাছ চাষ” নামে এক অভিনব কর্মসূচী গ্রহণ করল হলদিয়া ব্লক মৎস্য বিভাগ,মাছ চাষের অগ্রগতির উদ্যোগেই এই কর্মসূচি।

0
293

নিজস্ব সংবাদদাতা, পূর্ব মেদিনীপুর:- “বৈঠকি আড্ডায় মাছ চাষ” নামে এক অভিনব কর্মসূচী গ্রহন করল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার হলদিয়া ব্লক মৎস্য বিভাগ। গ্রামে গ্রামের মাছের খামারে গিয়ে আশে পাশের অল্প কয়েকজন মাছ চাষিদের নিয়ে বৈঠকি আড্ডা ।
কেমনভাবে হচ্ছে এই বৈঠক? মাছের ভেড়িতেই মাছ চাষি, মৎস্য আধিকারিক, উপস্থিত বিশেষ অথিতি সবাই এক সাথে গোল করে বসে খোস মেজাজে হচ্ছে আড্ডা। সকল জড়তা কাটিয়ে যেন মৎস্য বন্ধুদের এক গল্পের আসর বসেছে। এই অতিমারির সময় পেরিয়ে মাছ চাষি কেমন আছে সেই খবর যেমন নেওয়া হচ্ছে তেমনি গল্পের মাধ্যমে বৈজ্ঞানিক মাছ চাষের বিষয় গুলি আলোচনা করা হচ্ছে। একি সাথে বর্তমানে মৎস্য দপ্তরের সরকারি প্রকল্পের সম্পর্কে অবগত করানো হচ্ছে।
হলদিয়ার দ্বারিবেড়িয়া গ্রামের রাজ্য-সেরা “মীন-মিত্র” পুরস্কার প্রাপ্ত মৎস্যচাষি নারায়ন বর্মনের মৎস্য খামারে ১১ই ফেব্রুয়ারী ২০২২, শুক্রবার এমনি এক “বৈঠকি আড্ডার আয়োজন করা হয় । উপস্থিত হয়েছিলেন আশেপাশের বেশ কিছু মাছ চাষি। আড্ডা পরিচালনা করেন হলদিয়া ব্লকের মৎস্যচাষ সম্প্রসারন আধিকারিক সুমন কুমার সাহু। হলদিয়ার মৎস্য আধিকারিক সুমন কুমার সাহু বলেন, বৈঠকি আড্ডায় গল্পের ছলে মাছ চাষের কঠিন বিষয় গুলো আলোচনা করা হচ্ছে একি সাথে মাছ চাষির সাথে আত্মিক যোগাযোগ তৈরি হচ্ছে যার ফলে ও চাষিদের আন্তরিকতায় মাছ চাষের সরকারি কর্মসূচী অতি সহজে রূপায়ন করা হচ্ছে।
এই দিনের মাছ চাষের আড্ডায় বিশেষভাবে উপস্থিত ছিলেন ভারতীয় প্রযুক্তিবিদ্যা প্রতিষ্ঠান, খড়গপুর ( আই আই টি বা ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি, খড়গপুর) এর প্রাক্তন অধ্যাপক গবেষক ডক্টর অরুণাভ মিত্র। উনি কেবল মাছ চাষের অভিনব দিক নিয়ে আড্ডা দিলেন তাই না তিনি অনুপ্রেরণামূলক বক্তব্য রাখেন, যার মাধ্যমে মাছ চাষির স্বাভাবিক বিকাশের ঘটতে পারে । আড্ডায় আড্ডায় ডক্টর মিত্র বলেন, জীবন জীবিকায় মানুষের জন্য মাছ চাষের ভূমিকা তুলে ধরেন। প্রকৃতি নির্ভর বিজ্ঞান ভিত্তিক সহজ মাছ চাষের কথা বলেন। এর সাথে মাছ চাষির মন ও শরীর ঠিক রেখে জ্ঞান শক্তি, ইচ্ছে শক্তি ও কর্ম শক্তির ওপর নির্ভর করে জীবনের স্বপ্নপূরনের কথা শোনান। এবং একি সাথে এরকম এক অভিনব “বৈঠকি আড্ডা” আয়োজন করায় ডক্টর মিত্র হলদিয়ার মৎস্য আধিকারিকের ভূয়সী প্রশংসা করেন।
হলদিয়ার মৎস্য কর্মাধ্যক্ষ গোকুল মাজি বলেন, মৎস্য আধিকারিক সুমন বাবু প্রতিনিয়ত অভিনব উদ্যোগ গ্রহন করছেন মাছ চাষির স্বার্থে ও মাছ চাষের আধুনিকীকরণে হলদিয়া এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে। সরকারি সকল প্রকল্প অত্যন্ত সহজে আমরা মাছ চাষির কাছে পৌছে দিচ্ছি ।
হলদিয়ার বিডিও সঞ্জয় দাস কর্মসূচীর সাফল্য কামনা করে মৎস্যজীবীদের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করে বলেছেন প্রশাসন মৎস্যচাষির উন্নয়নে আছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here