মাথাভাঙ্গা পৌরসভার বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী তৃণমূল প্রার্থী কাকলি ঘোষের হাতে শংসাপত্র তুলে দিলেন মহকুমা শাসক।

0
249

মনিরুল হক, কোচবিহার: আগামী ২৭ শে ফেব্রুয়ারি মাথাভাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচন হতে চলেছে। আজকে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন ছিল। আজকে কোন রাজনৈতিক দল মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেনি। উল্লেখযোগ্যভাবে গতকাল মাথাভাঙ্গা ১০ নং ওয়ার্ডের বিজেপি প্রার্থী শান্ত বর্মন এবং সিপিআইএমের প্রার্থী অভিজিৎ সিনহা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন। ফলে ওই ওয়ার্ডের একমাত্র তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী উদয় শংকর চক্রবর্তী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করে।
অপরদিকে পৌরসভার আট নং ওয়ার্ডে বিজেপি প্রার্থী বিউটি সাহা এবং সিপিআইএম প্রার্থী সুস্মিতা সাহারায় মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নেন গতকাল। স্বাভাবিকভাবে ওই দুটি আসনে নির্বাচন হচ্ছে না আগামী ২৭ শে ফেব্রুয়ারি। এমনটাই জানালেন মাথাভাঙ্গার মহকুমাশাসক অচিন্ত্য কুমার হাজরা।
আজকে বিকেল ৪ টার সময় ৮ নং ওয়ার্ডের তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী কাকলি ঘোষকে বিজয়ী ঘোষণা করেন এবং তার হাতে বিজয়ীর শংসাপত্র তুলে দেন মাথাভাঙার মহকুমা শাসক অচিন্ত্য কুমার হাজরা।
বিজয়ের সার্টিফিকেট হাতে পেয়ে কাকলি ঘোষ বলেন, আমার ওয়ার্ডে ২৭ শে ফেব্রুয়ারি নির্বাচন হচ্ছে না। মহকুমা শাসক দপ্তর সূত্রে খবর পেয়ে আজকেই মহকুমা শাসকের কাছে ছুটে আসি শংসাপত্র নিয়ে যাওয়ার জন্য। শংসাপত্র হাতে পেয়েছি। স্বাভাবিকভাবে নিজের ভোট টা দিতে পারছি না এটা যেমন কষ্ট অপরদিকে আমার দায়িত্বটা বেড়ে গেল। আমি দলের হয়ে অন্যান্য ওয়ার্ডে প্রচারে তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থীদের জয়লাভ করার জন্য চেষ্টা করব। আজকে যেভাবে খবর পেয়ে ছুটে সার্টিফিকেট নিতে এলাম এমনভাবেই ওয়ার্ডের মানুষের কাছে ছুটে গিয়ে সমস্যার সমাধানে এগিয়ে যাব এমনটাই বললেন কাকলি দেবী।
এ বিষয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের মাথাভাঙ্গা শহর ব্লক সভাপতি বিশ্বজিৎ রায় বলেন, দুটো আসনে তৃণমূল কংগ্রেস বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করেছে। বাকি ১০ টি আসনে আমরা জয়লাভ করবো এটা নিশ্চিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here