প্রাকৃতিক বিপর্যয় ও মহামারীর থাবা কিছুটা কমলেও ভ্যালেন্টাইন্স ডে তে ভালো বিক্রির আশা করছে শহীদ মাতঙ্গিনী ব্লকের গোলাপ চাষিরা।

0
379

নিজস্ব সংবাদদাতা,পূর্ব মেদিনীপুর:- একেই মহামারী করোনার থাবা তারই মাঝে ওমিক্রনের আতঙ্ক, দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে গ্রাস করেছে সারাদেশকে, এই পরিস্থিতিতে কার্যত দিশেহারা পূর্ব মেদিনীপুর জেলার শহীদ মাতঙ্গিনী ব্লকের ফুলচাষীরা, জানা গিয়েছে ব্লকের অধিকাংশ মানুষ ফুল চাষের উপর নির্ভরশীল, ফুল চাষ করেই তাদের রুজি রোজগার, তবে দীর্ঘ বছর দুয়েক ধরে করোনার পরিস্থিতির কারণে কার্যত দিশেহারা ফুলচাষীরা, তারি মাঝে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের ফলে ক্ষতির মুখে এইসব চাষীরা, তবে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে বাজার ঘাট, ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা, এরই মাঝে রাত পোহালেই ভ্যালেন্টাইন্স ডে,দীর্ঘ দুই বছর ধরে করোনা পরিস্থিতির কারণে ভালো বিক্রি হতো না গোলাপ ফুলের, তবে এইবারে ভালো বিক্রির আশা রাখছি এলাকার গোলাপ চাষীরা, এই সম্বন্ধে স্থানীয় মহিলা ফুলচাষী চম্পা জানা জানান বহু বিপর্যয় কাটিয়ে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে চলেছে, তবে বিক্রি-বাটা যে কেমন হয় তা নিয়ে চিন্তিত রয়েছি আমরা, একদিকে সারের দাম ঊর্ধ্বমুখী, জিনিসপত্রের দাম আকাশছোঁয়া, এই ফুল চাষ করেই আমাদের জীবনযাত্রা, সব মিলিয়ে ভ্যালেন্টাইন্স ডে তে ভালো বিক্রির আশা রাখছে এলাকার গোলাপ চাষিরা।