২১শে” ফেকুশে ফ্যাকাসে ফেব্রুয়ারী :  সুরভি জাহাঙ্গীর।

0
1335

প্লীজ আপনার Name টা?

জ্বি ভাবি আমাকে বলছেন?
ইস! কেমন করে Me কে ভাবি বলছেন।
কেন? ভুল বল্লাম না কি?আহলে কি আপা বললে ঠিক হবে?
No No আপা Like করি না, আপি বল্লে কিছুটা ঠিক আছে।
সম্পূর্ণ ঠিক হতে হলে, আপনাকে কি নামে ডাকলে খুশি হবেন! আমার নাম *খেরুন বলে ডাকলে খুব খুশি হব।
কিরণ নাম শুনেছি এবং ভিনদেশী অনেক নাম শুনেছি, কিন্তু খেরুণ* নামের মত নাম আজ প্রথম শুনলাম।
Really! সত্যি সত্যিই আমি pleased হলাম।জানেন তো আমাদের Society তে, আমার নাম নিয়ে সবাই কত কত প্রশংসা করে থাকেন।খেরুণ* নামটা শুনলেই কেমন যেন অভিজাত অভিজাত Good smell মনে ভাসে। তাই না?
আসলে আমি এমন অভিজাত নামের সাথে পরিচিত নই। কেরুণ * আপা আপনাকে খুশি হওয়ার জন্য এমন কাতুকুতু মার্কা অদ্ভুত নামে সম্বোধন করি নাই!

তাহলে?

তাহলে আর কি বলি *খেরুণ আপা!খুব জানতে ইচ্ছে করছে, আপনার রহস্য ভরা নামের যাদুকরী অভিজাতীয় বিজাতীয় নামের অর্থটা কি?

আর বলবেন না! ছোট বেলায় বাবা, মা আর Relatives রা মিলে, আমার নাম নাম রেখেছিল *খায়রুন নেছা*! যত্তসব সব Unculture public.
এবার বুঝলাম এবার আপনি আমেরিকায় গিয়ে *খায়রুন নেছা * থেকে খেরুণ* হয়েছেন!যেমন ভাবে ডিমের মামলেট শহরে এসে অমলেট হয়েছে।

ইস! কি Dirty Talking! আবার সে-ই খায়রুন নেছা বলছেন?
বুঝলাম না!বাবা মায়ের দোয়ার নামে খাঁটি বাংলাতে আপনার ঠিক অসুবিধেটা কোথায় আপা? খায়রুন আপা, আপনার না হচ্ছে সঠিক ইংরেজি, না হচ্ছে সঠিক বাংলা। ঠিক আপনার *খেরুণ নামের মতোই অদ্ভুত প্রকৃতির ভাষা।

খায়রুন আপা কিছুক্ষণ আগে, আপনি আমার নাম কি শুনতে চেয়ে বলেছিলেন, নামটা বলবেন কি?
আমি তো কোন বস্তু সামগ্রী নই যে, আপনি বলবেন, ঐ বস্তাটায় কি আছে,সেই ঝোলাটায় কি আছে!

Omg. আপনি কি সব Bad Talk করছেন আমার সাথে।এ জন্যই আমি আমার H.B কে বলেছিলাম, আমি *মেরিকার পার্রলার থেকেই, Upper lip, Gold facial আর Massas টা করে যায়। নইলে বাংলাদেশ একটা গ্রাম্য খ্যাত। সেখানে আমি Good Parlar Even Good Behaviour টাও পাব না।এই ঢাকার শহর বাসের অযোগ্য আর এখানে মানুষ বসবাস করতে পারে না।
দুঃখিত খায়রুন আপা, আপনি নিজ দেশকে নিয়ে এমন বাজে কথা বলতে খারাপ লাগছে না?
আপনি কিন্তু আমাকে সেই গাইয়েদের মত খায়রুন আপা বলে Call করছেন।আমাকে খেরণ আপি* নয় তো ম্যাডাম বলে ডাকবেন।

কেন আপনাকে আপী ডাকতে যাব! কেনই বা ম্যাডাম ডাকতে হবে? আপনার ভায়ের বউ বা বোনকে, কিংবা চেনা জন কে, কি আপনি ম্যাডাম ডাকেন? আর আপনি কথার মাঝে খ্যাত বললেন কেন? আপনি আপনার আমেরিকা থেকে এসে, আমাদের খ্যাত বলছেন, নাক সিটকিয়ে কথা বলছেন! আর নিজে নিজে,ই নিজের দাম বড়ানোর জোর চেষ্টা করে চেষ্টা করছেন।যাদেরকে ছোট করে কথা বলছেন, তাদের কাছেই নিজের দাম বাড়াচ্ছেন!তাহলে নিজেকে অদ্ভুত প্রাণীতে নিজেই পরিনত করেছেন!
হ্যাঁ আমারা খ্যাত, আমারা গাঁইয়ে তবে আপনি বা আপনাদের মত আমেরিকা বাসিদের কাছে গাইয়ে এবং খ্যাত। শুদ্ধ বাংলায় বলুন ক্ষেত। হ্যাঁ আমরা ক্ষেত। তবে আপনার মত খ্যাত নই।
এবার একটু নিজের দিকে নজর দেন খায়রুন আপা।আপনার *মেরিকার ওঁরাও, আপনাদেরকে দেখে হাসাহাসি করে। আর আপনি হয়ত তখন ভাবেন আপনাকে খুব সুন্দর, স্মার্ট লাগছে, তাই ওঁরা আপনাকে দেখছেন! না তা একদম না। আপনি যেমন গ্রাম থেকে শহরে রূপবান টিনের বাক্স নিয়ে আসা মানুষকে নিয়ে হাসেন। তেমনি ওঁরাও আপনার সাজসজ্জা ভেবে,নিজেদের মধ্য হাসাহাসি করে।
আর বল্লেন যে, বাংলাদেশ বসবাসের অযোগ্য এবং বিশেষ করে ঢাকাশহরে মানুষ বাস করে না।তাহলে আমারা কি মানুষ নই?তাহলে আপনি অমানুষের এই দেশে আসছেন কেন? আর আপনার জোকার মার্কা সাজপোশাক দেখে আমার মনে হচ্ছে , আপনাকে সার্কাসে অথবা চিড়িয়াখানায় মানাত।অাপনি না হতে পাড়লেন স্মার্ট, না হতে পারলেন আমাদের মত গাইয়া! আমদের তো একটা পরিচয় আছে আমরা অশিক্ষিত গাইয়ে! আর আপনার তো কোন পরিচয়ই নেই। না হতে পাড়লেন আমেরিকান না হতে পরলেন চাষার বাচ্চা চাষা।আমারা চাষা খাঁটা খাসা।আর আপনি খোসা হয়ে জীবন কাটিয়ে দিবেন। আহারে খায়রুন আপা, আপানাকে দেখে খুব করুণা হচ্ছে আমার! এবার আপনার বা আপনাদের মত* খেরুণদের কাছে কয়েকটা প্রশ্ন আছে।

What’s?

১/দেশ রসাতলে যাচ্ছে, দেশ ববাসের অযোগ্য বলে এতো কথা বলছেন।এবার বলেন, আপনাদের মত * খেরুণরা দেশের জন্য কি করেছেন?
২/ দেশ বাস যোগ্য করতে কোন আন্দোলন, মিছিল কিংবা কোন সংলাপে বসেছেন কি?
৩/ দেশ বিরোধী কোন আনদোলনে আপনি বা আপনাদের ছেলেরা রাজপথে নেমেছে কি?
না কেউ নামেন নি! রাজপথ প্রতিবাদের রক্তে রঞ্জিত হয় এদেশে বসবাসরত খ্যাতদের রক্তে।আর আপনারা বড় বড় বক্তৃতা দিয়েই খালাস। আর এখন তো *ফেসবুক * হয়ে আপনাদের সুবিধা হয়েছে। অন লাইন প্রোগ্রাম করছেন।নিজেদেরকে সুধি সমাজের বিশিষ্টজন গড়ে তুলতে আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন।দেশের চিন্তায় আপনাদের ঘুম হচ্ছে না।নানা বক্তব্য দেওয়ার পরই আপনি নিরাপদে, আরাম আয়েশের হাজারো দিবা স্বপ্নে দেখে, গভীর ঘুমে নাগ ডাকছেন।

আপনার সাথে আর Bad Talk করতে চাই না।আমারা অন্য Subject আসি।
খায়রুন আপা, আমি আপনার সাথে কোন রকম টক,ঝাল, মিষ্টির কোনটাতেই আর টক রাঁধতে চাচ্ছি না।
So sorry আমি আপনাকে Hart করতে চাই নাই। আরে খায়রুণ আপা আপনি আমাকে হার্ট করবেন কি? আমিই তো বরং খাঁটি বাংলায় ঐ আর কি একটু বাঁশ দিলাম। যদিও আপনার বেঝার মত মাথা নেই।

What?

ঐ আর কি গাইয়েদের ভাষার ব্যবহার করলাম।
No Understand?
হা- হ-। আমি যতটা আপনার মাথা একটু মোটা ভেবে ছিলাম, এখন দেখছি তার থেকেও অধিক মোটা।

আমার Massas এর Serial আসতে অনেক সময় লাগবে।But বাঙ্গালী জাতি তো কোন Discipline জানে না, Good Behaviour জানে না। তাই, তো তারা জাতি হিসাবে পতে পিছিয়ে আছে। কোন উন্নতি হবে না এই জাতির।
খায়রুণ আপা এবারেও আপনি কিন্তু ঠিক বললেন না। কারণ উন্নতি ঠিকই হচ্ছে, সেটা আপনার বা আপনাদের মত মাথা মোটা মানুষদের চোখে পড়ছে না। দেশ ও জাতি পিছিয়ে পড়ছে আপনাদের আমেরিকান নয়, মেরিকানদের জন্য।

Me ?

হ্যাঁ! আপনাকেই বলছি।আপনাদের মত বই পড়া সর্বোচ্চ ডিগ্রিধারীরা *মেরিকাতে গিয়ে দ্বিতীয় হোম বানান।ভীষন স্বনিাথর্পর আপনারা। খাররুণ আপা আপনারা নির্লজ্জ ও বটে।নিজেদের সুখ, আর নিরাপত্তার কথাই ভেবে থাকেন । আর প্রতিমাসে সরকারী অনুদানের লাইনে দাঁড়িয়ে, মুখ লুকিয়ে, হাত পেতে সাহায্য নিয়ে, বাড়িতে এসে বড় মুখ করে মোড়গ পোলাও খান! আর বছরে একবার দেশে বেড়াতে এসে, দেশ ও দেশের মানুষের সাহায্য করা তো দুরের কথা,নাক উঁচুতে নিয়ে দেশের বদনাম করেন।আমাদের দেশের অল্প শিক্ষিত বা আপনাদের নাক সিটকানো ভাষাতে যাদেরকে মূর্খ বলে থাকেন, তারাই মধ্য প্রাচ্যে সহ ইউরোপ, আমেরিকা, লন্ডন সহ বিভিন্ন দেশে কাজ করে , নিজ দেশে বৈদেশিক মুদ্রা পাঠচ্ছেন।সেই সব মানুষ গুলির বিদেশে কোন দ্বিতীয় বাড়ি নেই।
Me কে । Hart করছেন?
হ্যাঁ আপনাকেই বলছি,খায়রুণ আপা। কারণ আপনি বলছেন, তাই আপনাকে আজ শুনতেই হবে।আপনি *মেরিকা থেকে আসছেন বলেই আমি আপনাকে সবজান্তা ভাববো, এতটা গাইয়া বোধহয় আমি নই। আপনাদের মত *মেরিকারা ভাবে ইংরাজিতে কথা বললেই, সবাই শিক্ষিত হয়ে গেছেন। আরে আপনার *মেরিকার অশিক্ষিত জনগন ইংরেজিতে কথা বলে, কারণ সেটা তাদের দেশের ভাষা।কেন আমাদের দেশের শিক্ষিত, অল্প শিক্ষিত,অশিক্ষিত বোবা ছাড়া সব মানুষেরা নিজ ভাষা, বাংলা ভাষাতেই কথা বলবে!

বাঙ্গালিরা খুবনDirty ভাষাতে কথা বলে।ছিঃ ছিঃ গা’ গুলিয়ে ওঠে।
ওহ্ তাই নাকি? আমাদের এই মাতৃভাষাতে আপনার গা গুলিয়ে ওঠে?১৯৫২ সালের ২১ শে ফেব্রুয়ারির মাতৃভাষার জন্য, বাংলা মায়ের দামাল ছেলেরা জীবন দিয়েছেন।সালাম,রফিক, বরকত, জব্বার আরও শতশত যুবক যুবতী,শিক্ষক, বুদ্ধিজীবীরা শহীদ হয়েছেন।কাল সকালে আমাদের ঐতিহাসিক সেই ভাষা দিবস।সকালে প্রভাত ফেরীতে গণসংগীত ” সালাম সালাম, হাজার সালাম! শহীদ স্মৃতির চরণে। আমার এ গান রেখে যেতে চাই শহীদ স্মৃতির স্মরণে”!

Stop Stop ! আপনাদের ২১ শে “ফেকুশে ফ্যাকাসে ফেব্রুয়ারী গান শোনার সময় আমার নেই। আমার ফোন এসেছে,আমাকে এখন টক করতে হবে!

* খেরুণের চিৎকারে আমি থেমে হয়ে গেলাম। কি হলো খায়রুন আপা। ফোন ধরে এমন হাউ মাউ করে কাঁদছেন কেন?
বড়িতে আমার কিউপি আর ডিঙ্কি ভীষণ দুষ্টুমি করছে।

কি দুষ্টুমি করছে?
ওরা মিট ছাড়া খেতে চাইছে না।
ও আচ্ছা আপনার ছেলে মেয়েরা বুঝি মাংস ছাড়া খেতে পারে না?
No No আমার ছেলে মেয়ে নয়!
তো?
আমার সাহেবী কুকুর আর মাল্টি চোখের বিড়ালের কথা বলছি।
তাই বলুন! আপনার কুকুর আর বিড়াল।

অমন করে Dirty ভাবে বলবেন না।ওদের সুন্দর নাম আছে। জানেন এই ডিঙ্কি আর কিউপীকে খাওয়া খরচ এবং ওদের দেকভাল বাবদ মাস গেলে কত খরচ হয়?।

কত?

50 Thousands টাকা।আজ কাল যাদের সাহেব বিবি কুকুর না থাকলে, হাই সোসাইটিতে মেশা যায় না।

ওহ্ আচ্ছা আচ্ছা তাই বুঝি!

শুধু কি তাই। আমাদের Society তে এখন আর মানুষের গল্প চলে না।

তবে কি চলে!

মাল্টি চোখের বিড়াল আর সহেব কুকুরের গল্প খুব চলছে।তাই তো আমাদের হাই সোসাইটির মানুষেরা মাল্টিপারপার্স স্টাটাসে Belong করি।

আর কিছু?
আরো আছে?
আজকাল তো মাল্টি চোখের বিড়াল আর সাহবে কুকুরের সাথে যদি ফেবুতে ছবি পোষ্ট না করি, তাহলে তো, আমার বুনিয়াদির কোন মাল্টিপারপার্স স্ট্যাটাস প্রকাশ পাবে না।

ওহ্ আচ্ছা। তাহলে তো আমাদের কো স্ট্যাটাস নেই।

নাহ্! নেই তো!

খায়রুন আপা আপনি ভিক্ষুককে ভিক্ষা দিয়েছেন? No No so Dirty Man,Body থেকে Bad Smell আসে। গা ঘিনঘিন করে। যাতে ভিক্ষুক ভিক্ষা নিতে না আসতে পারে, তার জন্য দারোয়ানের & ইলসে সিয়ান Dog রাখা আছে।
খুব মনে পড়ে আজ ধর্মের অমৃতবাণী ” জীবে দয়া করে যে-ই জন,সেই জন সেবিছে ঈশ্বর “!

কি গাইয়া সব কথা বলছেন আপনি।
সত্যি সত্যিই আমি ও আমারা খ্যাত। তবে আপনার মত *খেরুণ নই!
আপনাদের মত খেরুন*দের আমি অামি ও আমারা অনেক দেখেছি।ইতিহাস সাক্ষী দেয় যে,যুগে যুগে কুলাঙ্গার নামক খেরুণদের* জন্ম হয়। সেই ” পলাশীর প্রান্তর ” থেকে শুরু করে,মীরজাফর, মীরণ,জগৎ শেঠ, রায় দূর্লভ, ঘষেঠী বেগম আরো কত।৭১ এর আলবদর,রাজাকার কুলাঙ্গারা।
আর ৫২” তে মায়ের মুখের ভাষা কেড়ে নিতে চেয়েছিল কিছু কুচক্রী খেরুণ*রা।
কিন্তু দুষ্টের দমনের জন্যও যুগে যুগে দেশ প্রেমিক বীরদের জন্ম হয়।এই দেশে যেমন কুলাঙ্গার জন্মেছে তেমনি দেশ প্রেমিক বীর জন্মেছে.. মোহনলাল, সালাম,বরকত,জব্বার,নূর হোসেন,লাখো মুক্তি সেনার দল আর তাঁঁদের সাথে,শিক্ষক, বুদ্ধিজীবী ও আপামর বাংলার জনসাধারণ।

আমি মনে করি, সত্যি সত্যিই আপনারা খেরুণ* বাবা মায়ের দেওয়া নামের স্নেহময়ী * খায়রুন অাপা * হতে পারেন না। অাসলে চন্দন বাগানেও কিছু অজাতকুজাত জঙ্গল জন্মে থাকে। তাতে চন্দন বাগানের সুগন্ধি কিছু কমে যায় না।

আজ ভোরে আমি প্রভাতফেরীতে যাব গন সঙ্গীত গাইতে গাইতে ” অামার ভায়ের রক্তে রাঙ্গানো ২১ “ফেব্রুয়ারী…. আমি কি ভুলিতে পারি”!
এর পরে ” শহীদ মিনারে ” শ্রদ্ধা জানিয়ে কুলাঙ্গার খেরণ* নিধনের শপথ নেব।
শ্লোগানে শ্লোগানে ” শহীদ মিনার ” প্রাঙ্গন তোলাপাড় করে তুলবই। আমি রাজপথে দাড়িয়ে, তমুল আন্দোলনে সবাইকে সাথে নিয়ে.. তোলপাড় করবই।

আমি বলব পুনরায় ” ভাষা আন্দোলন ” চাই। আমি রুখে দাঁড়াবো সকল * খেরণদের বিরুদ্ধে। আমি আমার, আমাদের দেশের মাটিতে * খেরণদের পা” রাখতে দিব না।
আামার মাতৃভূমি থেকে * খেরণদের বিতাড়িত করবই। তোমারা কি আমার সাথে তোলপাড় করা তুমুল আন্দোলনে শপথের শ্লোগান দিবে? তাহলে চল *শহীদ মিনারে *
শোনরে *খেরুণের দল… কান পেতে শোন!
নতুনের তরে নতুন করে,তোদের রক্ত রাঙায় এবার ফলাব সু-ফসল!।