বিহার থেকে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর সীমান্তবর্তী অঞ্চল কুমেদপুর এলাকায় মদ খেতে এসে দুষ্কৃতীরা চালালো গুলি।

0
251

নিজস্ব সংবাদদাতা, মালদাঃ- বিহার থেকে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুর সীমান্তবর্তী অঞ্চল কুমেদপুর এলাকায় মদ খেতে এসে দুষ্কৃতীরা চালালো গুলি। মদের ঠেকের মধ্যেই চলল গুলি। গুলিবিদ্ধ হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ভর্তি হাসপাতালে। তীব্র চাঞ্চল্য এলাকায়।ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার গভীর রাতে মালদা জেলার হরিশচন্দ্রপুর থানা এলাকার বাংলা বিহার-সীমান্তবর্তী কুমেদপুরের দরিয়াপুর এলাকায়। বিহার রাজ্যে মদ নিষিদ্ধ। সেখান থেকে ৫ জন মদ খাওয়ার উদ্দেশ্যে বিহার সীমান্তবর্তী কুমেদপুরের দরিয়াপুরে আসে। সেখানেই একটি মদের ঠেকে বচসা বেধে যায় স্থানীয় এক বাসিন্দার সাথে। বচসার জেরে দুষ্কৃতীরা চালায় গুলি।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায় গুলিবিদ্ধ হয় স্থানীয় বাসিন্দা বর্মা হাঁসদা(৩৬)। বাড়ি কুমেদপুর দরিয়াপুর এলাকায়। পিঠে গুলি লাগার পরে লুটিয়ে পড়ে মাটিতে। তড়িঘড়ি ওই ব্যক্তিকে হরিশ্চন্দ্রপুর গ্রামীণ হাসপাতাল নিয়ে আসা হলে পরে ওই ব্যক্তির আশঙ্কাজনক অবস্থায় এই মুহূর্তে মালদা মেডিক্যাল হাসপাতালে পাঠানো হয়। গুলি চালানোর ঘটনায় অভিযুক্ত ৫ জন পালানোর চেষ্টা করে। তাদের মধ্যে ২ জনকে গ্রেপ্তার করে হরিশচন্দ্রপুর থানার পুলিশ। যদিও ৩ জন পলাতক। ধৃতরা বিহারের বাসিন্দা, সন্তোষ শর্মা (৪৩), বিকাশ কুমার রজক(৩২)। বাড়ি বিহারের কাঠিয়ার জেলার আজম নগর থানার পলসা এলাকায়। ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। কি কারনে গুলি চালানো হল এর পেছনে পুরনো কোনো শত্রুতা রয়েছে কি না সমস্ত ঘটনা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাস্থলে মোতায়েন রয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here