চন্দ্রকোনারোড শহর সংলগ্ন মজুরনাচা শাল জঙ্গলের মাঝে বসন্ত উৎসব পালন।

0
266

নিজস্ব সংবাদদাতা,পশ্চিম মেদিনীপুর:- বসন্ত ষড়ঋতুর শেষ ঋতু। ফাল্গুন এবং চৈত্র মাস মিলে হয় বসন্ত ঋতু। বসন্ত ঋতুর আগমন ঘটে শীত চলে যাবার পর এবং গ্রীষ্ম আসার আগে। গ্রীষ্মমন্ডলীয় এলাকায় তাপমাত্রা বাড়তে থাকে কারণ পৃথিবী সূর্যের দিকে হেলে থাকে। পৃথিবীর অনেক প্রান্তে এই ঋতুতে ফুল ফুটে, নতুন গাছের পাতা গজায়, নতুন গাছের জন্ম হয়। এই মনোরম পরিবেশের মাঝে বসন্ত উৎসবে মেতেছে নিত্য শিল্পীরা, বাঙালির বারো মাসে তেরো পার্বণ, আর এই বারো মাসে তেরো পার্বণ শেষ হয় বসন্ত উৎসব আর হোলি উৎসবের মধ্য দিয়ে, বাংলা বছর শেষের আগে রঙের উৎসব বসন্ত উৎসব প্রতিটা বাঙালির জীবনে যে আলাদা এক রঙিন ছোঁয়া নিয়ে আসে তা নিশ্চয়ই বলার অপেক্ষা রাখে না, রবিবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলায় গড়বেতা ৩ নম্বর ব্লকের চন্দ্রকোনারোড শহর সংলগ্ন মজুরনাচা গ্রামের সবুজে ঘেরা সাল বাগানের মাঝে নিত্যমকলা মন্দিরের উদ্যোগে নৃত্য শিল্পীদের নিয়ে এই বসন্ত উৎসবে মেতে উঠেছে সকলে, জানা গিয়েছে এই বছর পঞ্চম বর্ষে পা দিয়েছে নিত্যমকলা মন্দিরের বসন্ত উৎসব, বিভিন্ন রঙের আবির ছোঁয়াতে নিত্তের মধ্য দিয়ে এই বসন্ত উৎসবে মেতে উঠেছে নৃত্যশিল্পীরা,নিত্তের শিক্ষিকা তিলোত্তমা নান্দী জানান প্রত্যেক বছর আমরা এই বসন্ত উৎসবের আয়োজন করে থাকি, তবে বন্ধ ছিল করোনার বাড়বাড়ন্তের মাঝে।