নদীয়ার শান্তিপুরে কাপড় বোনা রেপিয়ার মেশিন অপারেটর কে ঘরের দরজা বন্ধ করে মারার অভিযোগ উঠল মালিক এবং ম্যানেজারের বিরুদ্ধে।

0
159

নদীয়া-শান্তিপুর, নিজস্ব সংবাদদাতা:- নদীয়ার শান্তিপুর মেলের মাঠ অঞ্চলে এক তাঁতের শাড়ি বোনা রেপিয়ার কারখানার অপারেটরকে ঘরে দরজা বন্ধ করে লোহার রড দিয়ে মারার অভিযোগ উঠল মালিকের বিরুদ্ধে। সূত্রের খবর অনুযায়ী জানা যায় মালদা থেকে আগত বাবর মমিম ওই কারখানার দু’বছর ধরে কাজ করে। মাসের মাইনে বাবদ 3 মাসের বকেয়া টাকা পাওনা রয়েছে ওই মালিকের কাছে। আজ তিনি কাজ ছেড়ে দেবেন বলে জানান দেয় এবং তার বকেয়া টাকা চায়। বাবরের অভিযোগ, কারখানার আদিত্য তমাল এবং ঋত্বিক তিনজন মিলে ঘরের দরজা বন্ধ করে গণ প্রহার করে তাকে এবং মেরে ফেলতে উদ্যত হয়। এমন সময় এক কর্মচারী দেখে বাবরের মামা সালমান কে ফোন করে জানায় । মালদা থেকে এ ধরনের রিপিয়ার মিস্ত্রি কাজ করতে আসা বেশ কয়েক জন বিভিন্ন মেশিন ঘর থেকে ছুটে আসে ওই কারখানায়। সেখান থেকে বাবরকে উদ্ধার করে নিয়ে শান্তিপুর স্টেট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসা করায় এবং শান্তিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ জানায়।
এ বিষয়ে বাবরের মামা সালমান জানান আমাদের কাজের ফলে আজকে মালিক দুটো লাভের মুখ দেখে, তাদেরকে ঠকানোর পরেও এভাবে শারীরিক অত্যাচার মেনে নেওয়া যায় না তাই থানার দ্বারস্থ হচ্ছি আমরা। অবিলম্বে বকেয়া টাকা এবং মালিকের শাস্তি চাই।
যদিও গোটা ঘটনা অস্বীকার করে মালিক তমাল শেখ, তিনি বলেন অ্যাডভান্স বাবদ তাদের কাছ থেকে টাকা নেওয়া ছিলো, এ বাদেও টাকা চাওয়ার জন্য ঝামেলা বেধে আমার ম্যানেজার রিত্তিকের সাথে। দুপক্ষই মারামারির ফলে আহত হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here