কোচবিহারে তোর্ষা নদীর জলস্ফীতিতে ঘরবন্দি বহু মানুষ, জলমগ্ন এলাকা পরিদর্শন পুরসভার চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।

0
220

মনিরুল হক, কোচবিহারঃ টানা কয়েকদিন ধরে চলছে বৃষ্টি। আর সেই বৃষ্টির জেরে কোচবিহারের তোর্ষা নদীতে জল বাড়ছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে জারি করা হয়েছে হলুদ সতর্কতা। তোর্ষা নদীর জল বেড়ে যাওয়ার কারনে কোচবিহার জেলার বহু মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়েছেন। শনিবার কোচবিহার শহরের দেবীবাড়ি, রানিবাগান, ফাঁসিরঘাট সহ বহু এলাকা জলমগ্ন হয়ে পড়েছে। দুর্গতরা বাড়ি ছেড়ে বাঁধের ওপর আশ্রয় নিয়েছেন। সেখানে তারা অস্থায়ী তাবু বানিয়ে থাকবে বলে জানা গিয়েছে। শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান কোচবিহার পুরসভার চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ।
জানা গেছে, তোর্ষা নদীর জল বেড়ে যাওয়ার ফাঁসিরঘাট এলাকার বহু মানুষ ঘরবন্দি হয়ে পড়েছেন। যেহেতু প্রশাসনের পক্ষ থেকে হলুদ সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সেই পরিস্থিতি সামাল দিতে কোতোয়ালি থানার আইসি অমিতাভ দাসের নেতৃত্বে পুলিশবাহিনী মোতায়েন রয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দাদের নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে। কয়েকদিন ধরে টানা বৃষ্টিতে নদীগুলিতে জল বাড়ছে। তোর্ষায় জল বাড়ায় আতঙ্কে রয়েছেন চর এলাকার বাসিন্দারা। কোচবিহার শহরের ফাঁসিরঘাট এলাকায় হাজারেরও বেশি মানুষ বসবাস করেন। প্রতিবছরই বর্ষায় তাঁদের সমস্যায় পড়তে হয়।

এদিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কোচবিহার পুরসভার চেয়ারম্যান রবীন্দ্রনাথ ঘোষ জানান, আমরা সকাল থেকে ভিন্ন ওয়ার্ডের কাউন্সিলাদের জলমগ্ন এলাকায় পাঠানো হচ্ছে। আমি নিজেও জল্মগ্ন এলাকা গুলো পরিদর্শন করছি। আমরা পৌরসভার উদ্যোগে ৮টি জায়গায় দুর্গতদের জন্য ত্রাণ শিবির খোলা হচ্ছে বলে জানান তিনি।