অভিনব ভাবে ২১ জুলাই শহীদ স্বরণ করলেন রবীন্দ্র নাথ।

0
430

ক্যানিং, নিজস্ব সংবাদদাতা :-  অভিনব ভাবে ২১ জুলাই শহীদদের কে স্মরণ করলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার মাতলা ১ পঞ্চায়েতের সদস্য তথা তৃণমূল কর্মী সমর্থক রবীন্দ্র নাথ অধিকারী।যা কিনা সমগ্র রাজ্যে এমন উদ্যোগ প্রথম। রীতিমতো ১৩ জন শহীদের নামে বৃহষ্পতিবার সকালে ১৩ টি বৃক্ষরোপণ করলেন ১৯৯৩ সালে ২১ জুলাই ১৩ জন শহীদের নামে। পাশাপাশি প্রতিটি গাছের গায়ে ২১ জুলাইয়ের শহীদ বন্দনা দাস, মুরারী চক্রবর্তী, রতন মণ্ডল, কল্যান বন্দ্যোপাধ্যায়, বিশ্বনাথ রায়, অসীম দাস, কেশব বৈরাগী, শ্রীকান্ত শর্মা, দিলীপ দাস, রঞ্জিত দাস, প্রদীপ দাস, মহম্মদ খালেক, ইনু’দের নাম বড় বড় হরফে লিখে দিলেন। পরে শহীদদের স্মরণ করে প্রতিটি গাছের গায়ে পরিয়ে দিলেন ফুলের মালা,জ্বেলে দিলেন উজ্জল বাতি।
কেন এমন উদ্যোগ?উত্তরে মাতলা ১ গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য রবীন্দ্রনাথ অধিকারী জানালেন ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেদিন আন্দোলন শুরু করেছিলেন সেদিনের ঘটনা আজ ইতিহাস। ১৩ জন শহীদের রক্তে রাঙানো ২১ জুশাই। প্রতিবছরই তাঁদের কে স্মরণ করতে ২১ জুলাই ধর্মতলার শহীদ মিনারের পাদদেশে শহীদ দিবস পালন করা হয়।বিগত দিনের ১৩ জন শহীদের আত্মবলিদান আজ তৃণমূল কংগ্রেসের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বেঁচে থাকার অনুপ্রেরণায় অক্সিজেন জোগায়।আবার সেই দিনের ১৩ জন শহীদ আজও প্রতিটি তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীকে অনুপ্রেরণা জোগায়। বলা ভালো অক্সিজেন প্রদান করে থাকেন। যার জন্য আমরা তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা উজ্জীবিত।সেই কারণে ১৩ জন শহীদ কে স্বরণ করে ১৩ টি বৃক্ষরোপণ করে তাঁদের কে স্মরণ করার অঙ্গীকার নিয়েছি। বিশেষ করে এই গাছ গুলো আগামী দিনের প্রেরণা এবং বর্তমান প্রজন্ম যাতে করে ২১ জুলাই কি এবং কেন তা জানতে পারে তার জন্য এমন উদ্যোগ নিয়েছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here