প্রাথমিক চাকরি দেওয়ার নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকার আত্মসাতের অভিযোগ উঠল মহিষাদলে।

0
86

পূর্ব মেদিনীপুর, নিজস্ব সংবাদদাতা:-  প্রাথমিকে চাকরি করে দেওয়ার টোপ দিয়ে পার্থ চট্টপাধ্যায় ও মানিক ভট্টাচার্যর নাম করে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ।কিছুজনের চাকরি করে দিয়েছি, টাকা ফেরতও দিয়েছি কয়েকজনের, চাপের মুখে স্বীকারোক্তি অভিযুক্তর। আর এই নিয়ে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর,কখনো পার্থ চট্টপাধ্যায়ের নাম করে, আবার কখনো মানিক ভট্টাচার্যর নাম করে প্রাথমিকে চাকরির টোপ দিয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্মসাত করার অভিযোগ পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মহিষাদলের এক যুবকের বিরুদ্ধে। মহিষাদলের কাপাসএড়্যা এলাকার বাসিন্দা দেবপ্রসাদ সেনী যার ডাক নাম লুড়কা, তিনি গত তিন -চার বছর ধরে মহিষাদল এলাকার একাধিক ব্যাক্তির কাছ থেকে ৫ থেকে ১৫ লক্ষ টাকা করে নিয়েছেন প্রাথমিকে চাকরি দেওয়ার নাম করে। কিন্তু কি বিশ্বাসে স্থানীয় বাসিন্দারা দেবপ্রসাদকে দিতেন লক্ষ লক্ষ টাকা??
সুত্রের খবর, মহিষাদল এলাকার বেশ কিছু জনকে টাকার বিনিময়ে চাকরি করে দিয়েছিলেন দেবপ্রসাদ। আর তা জানার পর, বিশ্বাসে কেউ নিজের মেয়ে কেউ আবার নিজের আত্মীয়র চাকরির জন্য দিয়েছিলেন লক্ষ লক্ষ টাকা। কিন্তু চার পাঁচবছর কেটে গেলেও চাকরিতো হয়নি, উলটে টাকা ফেরতের আশ্বাস পেয়ে বারে বারে ঠকতে হয়েছে। এমনকি টাকা ফেরতের জন্য চেক দেওয়া হলেও তা বাউন্স করেছে।
তবে অভিযুক্ত দেবপ্রসাদ সেনীর বক্তব্য, ২০থেকে ২৫ জনের চাকরি করে দিয়েছি। তারা যে যার জেলায় চাকরি করছে। অনেকের টাকা ফেরত দিয়েছি। আমি আমার সোর্সের মাধ্যমে এই চাকরি করে দিতাম।
আর নিয়েই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতোর। বিজেপির অভিযোগ, রাজ্যে শাসকদলের মদতে এই চাকরি বিক্রি চক্রের রমরমা। পালটা বিজেপিকে আক্রমণ শানিয়েছেন তৃনমূল কংগ্রেস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here