সোনারপুর কাব‍্যমঞ্চ-এর “কবিতা উৎসব-২০২২” অনুষ্ঠিত হল যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য বিজ্ঞান ভবন অডিটোরিয়ামে।

0
948

নিজস্ব সংবাদদাতা, কলকাতা:- যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্রন্থাগার ও তথ্য বিজ্ঞ।ন  বিভাগের সহযোগিতায় ও কাব্যমঞ্চের উদ্যোগে
দু’দিনের ১০ ও ১১ ই সেপ্টেম্বর কবিতার কর্মশালা চলেছে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মঙ্গলপ্রসাদ সিনহা মেমোরিয়াল হলে। অনুষ্ঠানের উদ্বোধক উত্তরবঙ্গের বিশিষ্ট কবি ও প্রযুক্তিবিদ মাননীয় বিশ্বনাথ লাহা।

প্রথমদিনের অনুষ্ঠানে কবিতার কর্মশালায় ‘উত্তর আধুনিক চেতনা নিয়ে মূখ্য অতিথি অধ‍্যাপক ও গবেষক ড.অমিতাভ গুপ্ত মহাশয় বক্তব‍্য রাখেন।
পোয়েটস ফাউন্ডেশনের কর্ণধার, বিশ্ব কবিতা দিবসের স্রষ্টা ও অনুষ্ঠানের  প্রধান অতিথি,  কবি প্রদীপকুমার চৌধুরী অসাধারণ বক্তব্য রাখেন। শিশুসাহিত্যিক জয়দীপ চক্রবর্তীর বিষয় ছিল ‘বাংলা ছড়া- কবিতায় ছন্দ, মাত্রা যতি ‘।

দ্বিতীয় দিনে ছাত্রাবস্থা থেকেই পত্রিকা সম্পাদনা ও প্রকাশনার জন্য সাবিত্রী চক্রবর্তী স্মৃতি সম্মান প্রদান করা হয় দঃ ২৪ পরগনার জেলার তরুন সম্পাদক ও গবেষক লিটন রাকিবকে। এ দিন লিটন রাকিবকে উত্তরীয় পরিয়ে দেন বঙ্গীয় সাহিত্য পরিষৎ এর গ্রন্থশালাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড.সত্যপ্রিয় মুখোপাধ্যায়, পুষ্পস্তবক তুলে দেন সোনারপুর কাব্যমঞ্চের সম্পাদক হরিশঙ্কর কুন্ডু, উপহার সামগ্রী তুলে দেন কবি প্রসেনজিত রায় এবং স্মৃতি সম্মানটি তুলে দেন সাবিত্রী চক্রবর্তীর পুত্র বিশিষ্ট সাংস্কৃতিকজন বরুন চক্রবর্তী।

উল্লেখ্য এদিন মরনোত্তর কবিসম্মান পান
প্রয়াত কবি বর্ণালী লাহা,পত্রিকা সম্পাদনা ও প্রকাশনার জন্য পান অধীর কৃষ্ণ মণ্ডল(সম্পাদক,বনানী),সমাজসেবা ও মানবিক কাজের জন্য পান শিক্ষারত্ন অমল নায়েক (সুন্দরবন)
শিক্ষারত্ন সুবর্ণ দাস
(বিভাগীয় প্রধান/গ্রন্থাগার ও তথ‍্য বিজ্ঞান বিভাগ/যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়)
বাংলাদেশ থেকে সম্মানিত হন কবি ও ছড়াকার হাসনাত আমজাদ প্রমুখ।

বিশিষ্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের দূষণ বিভাগের আধিকারিক ও কবি  অরূপ গুছাইত, নিখিল ভারত শিশুসাহিত‍্য সংসদের কেন্দ্রীয় সম্পাদক, বিশিষ্ট কবি ও ছড়াকার মাননীয় আনসার উল হক, কবি অমিত চক্রবর্তী প্রমুখ। অনুষ্টানটির সভাপতিত্ব করেন সুখেন্দু মজুমদার। সমগ্র অনুষ্টানটি পরিচালনা করেন প্রবীর রঞ্জন মণ্ডল, বরুন চক্রবর্তী ও জুমেলী সরকার।  উদ্বোধন সংগীত শিল্পী – ঝিমলি চক্রবর্তী এবং শ্রীময়ী ভট্টাচার্য্য ও ইন্দ্রনীল ভট্টাচার্য্যের যুগলবন্দী কবিতার কোলাজ অনুষ্ঠানকে এক অন‍্য মাত্রা দেয়।