মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ দেওয়াতেই এখন মালদা পুলিশের মধ্যে শুরু হয়েছে যোগব্যায়াম ও শরীরচর্চার তৎপরতা।

0
162

মালদা , নিজস্ব সংবাদদাতাঃ- সম্প্রতি মালদায় প্রশাসনিক বৈঠক করতে এসে পুরাতন মালদা থানার আইসি হীরক বিশ্বাসের মোটা শরীর দেখে ধমক দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বলেছিলেন শরীর চর্চা করেন তো। কাজের ফাঁকে শরীরচর্চা করতে হবে‌। আর মুখ্যমন্ত্রীর এমনই নির্দেশ দেওয়াতেই এখন মালদা পুলিশের মধ্যে শুরু হয়েছে যোগব্যায়াম ও শরীরচর্চার তৎপরতা। ইতিমধ্যে গাজোল থানার আইসি রণবীর বাগের উদ্যোগে শুরু হয়েছে সংশ্লিষ্ট থানার পুলিশকর্মী ও সিভিক ভলেন্টিয়ারদের নিয়ে যোগ ব্যায়াম এবং শরীরচর্চার প্রশিক্ষণ । নিয়মিত কাকভোরে গাজোল বিএসএ ময়দানে চলছে সিভিক ভলেন্টিয়ার ও পুলিশ কর্মীদের নিয়ে শরীরচর্চার কর্মকাণ্ড । যার নেতৃত্বে রয়েছেন গাজোল থানার আইসি রণবীর বাগ , এসআই বিশ্বজিৎ দাস প্রমূখ।

উল্লেখ্য, গত ৮ নভেম্বর মালদা কলেজ অডিটরিয়ামে প্রশাসনিক বৈঠক করতে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি । সেই বৈঠকে বিভিন্ন পুলিশ এবং প্রশাসনের কর্তাদের সঙ্গে মতামত বিনিময় করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। একসময় পুরাতন মালদা থানার আইসি হীরক বিশ্বাসকে কিছু প্রশ্নের উত্তর জানতে গিয়ে তার শরীর দেখে হতচকিত হয়ে পড়েন মুখ্যমন্ত্রী। সকলের সামনে মুখ্যমন্ত্রী বলে ওঠেন যোগ ব্যায়াম করুন । কাজের ফাঁকে নিয়মিত শরীরচর্চা করা উচিত।  তাতে শরীর ও মন দুটোই ভালো থাকে। আর মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ যেমনি বলা, তেমনি শুরু হয়েছে কাজ । বিভিন্ন থানার পাশাপাশি এখন গাজোল থানাতেও শুরু হয়েছে  পুলিশ কর্মীদের মধ্যে শরীরচর্চার তৎপরতা।

গাজোল থানার আইসি রণবীর বাগ জানিয়েছেন, সোমবার থেকে সংশ্লিষ্ট থানার সিভিক ভলেন্টিয়ারদের শরীরচর্চার প্রশিক্ষণ দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে। তার পাশাপাশি এই থানায় আগ্রহী পুলিশকর্মীরা অংশ নিয়েছেন। নিয়মিত শরীরচর্চা করলে মন এবং শরীর দুটোই ভালো থাকে, তার কথা মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন। এটা সত্যি কাজের ফাঁকে অন্তত একটু হলেও শরীরচর্চা করা উচিত। একটানা এক সপ্তাহ ধরে এখন এই শরীরচর্চার প্রশিক্ষণ চলবে।

ছবি ——— গাজোলে বিএসএফ মাঠে সিভিক ভলেন্টিয়ার ও পুলিশকর্মীদের শরীরচর্চার প্রশিক্ষণ চলছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here