হলদিয়ায় খুদে পড়ুয়াদের“মাছ চেনানোর পাঠশালা”।

0
615

নিজস্ব সংবাদদাতা,পূর্ব মেদিনীপুর:- নতুন প্রজন্ম মাছ চিনতে ভুলেছে । বাজার থেকে বাবা আনেন “কাটা মাছ” । মানে রুই , কাতলা মাছের বাজার থেকে কেটে আনা হয় বাড়িতে। বাচ্চারা তাই চেনে “কাটা মাছ “ হিসেবে । আর রুই, কাতলা , মৃগেল ছাড়াও কোনটা মাগুর , কোনটা শিঙি ,কিংবা কৈ গলদা বা বাগদা এসব মাছ চেনা । এক “মাছ চেনার পাঠশালা” শীর্ষক কর্মশালায় অনুষ্ঠিত হল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার হলদিয়ার পরানচক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে। ক্ষুদে কাঁচাদের মাছ চেনাতে উপস্থিত ছিলেন হলদিয়ার মৎস্যচাষ সম্প্রসারন আধিকারিক সুমন কুমার সাহু। স্কুলের বাচ্চা ছেলে মেয়েরা বিভিন্ন মাছের মজাদার বৈজ্ঞানিক বিষয় গুলি গল্পের ছলে শুনে সাথে ছবিতে বিভিন্ন মাছ দেখে বেজায় খুশি।

প্রধান শিক্ষক সুকুমার শেঠ জানান, সুমন বাবুর এই কর্মশালায় আসায় ও করোনা পরবর্তী এই সময় স্কুলের খোলার পর এমন ব্যবহারিক প্রয়োজনীয় বিষয় আলোচনায় ছাত্রদের পাশাপাশি আমার বিদ্যালয়ের শিক্ষক শিক্ষিকা মহলও উপকৃত হল। মৎস্য আধিকারিক সুমন কুমার সাহু জানান, এরকম কর্মসূচীর ফলে প্রজন্মের কাছে হারিয়ে যাওয়া মাছ রক্ষার সাথে প্রকৃতির প্রতি ভালবাসা বাড়ানো যাচ্ছে। স্কুলে স্কুলে এমন মাছ চেনার পাঠশালা আয়োজন করলে উপস্থিত থেকে আরো বেশি করে উৎসাহিত করা হবে।